সোনা পাচারের ধরণ দেখে হতভম্ব শুল্ক দফতর

0 32

ভিনদেশ ডেস্ক: একটা পাত্রের মধ্যে রাখা রয়েছে হালকা হলুদ রঙের পেস্ট জাতীয় কোনও পদার্থ। প্রথমে দেখলে মনে হবে সেটা মানুষের মল। শুল্ক দফতরের অফিসাররাও তা-ই ভেবেছিলেন। মলের মত দেখতে ওই পেস্টটাই যে সোনা, সেটা কারও ধারণাতেই আসে‌নি। গত ২১ জুলাই হায়দরাবাদের বিমানবন্দরে এক পাচারকারীর কাছ থেকে এমনই  সোনার পেস্ট উদ্ধার হয়।

২২ জুলাই সংবাদ সংস্থা এএনআই সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি শেয়ার করতেই ভাইরাল হয়ে যায়। এএনআই সূত্রে খবর, এক কেজি ৮৫০ গ্রাম সোনা ছিল ওই পেস্টে। সেখান থেকে এক কেজি ১২০ গ্রাম ৭৮ মিলিগ্রামের মতো সোনা পাওয়া গিয়েছে। যার দাম প্রায় সাড়ে ৩৪ লক্ষ।

কখনও জুতোর সোলে, কখনও টেপ দিয়ে শরীরের মধ্যে জড়িয়ে, কখনও ট্রলির চাকায়— এ রকম নানা উপায়ে সোনা পাচারের ভুরি ভুরি উদাহরণ রয়েছে। কিন্তু হায়দরাবাদ বিমানবন্দরে সোনা পাচারের এই অভিনব ধরন দেখে রীতিমতো ঘুম উড়ে গিয়েছে শুল্ক দফতরের।

এ ভাবেও সোনা পাচার করা সম্ভব! বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতে সোনা পাচারের ঘটনা দিন দিন বাড়ছে। পাচার রুখতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হয়েছে দেশের প্রতিটি বিমানবন্দরে। নিরাপত্তা যত বেড়েছে, পাচারের পুরনো পদ্ধতি থেকে তত সরে এসেছে পাচারকারীরা। নিরাপত্তা অফিসারদের চোখে ধুলো দিতে তাল মিলিয়ে তারাওবেছে নিচ্ছে পাচারের অভিনব পদ্ধতি। হায়দরাবাদ বিমানবন্দরের এই ঘটনাই তা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল।

Leave A Reply

Your email address will not be published.